সফিকুল ইসলাম, শরীয়তপুর প্রতিনিধিঃ

শরীয়তপুর জেলার ডামুড্যা উপজেলা উত্তর ডামুড্যার প্রবাসী কাইয়ুম হোসেন নিপ্পন শরীফের জমিতে জোর পূর্বক সাবেক সাবরেজিস্টার ও সাবেক চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম সাইলুর নামে ঘেয়ার খননের অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার (২৬ জুন) বেলা সাড়ে ১১ টার সময় সরেজমিন ঘুরে দেখা যায় নিপ্পন শরীফ বাড়িতে না থাকার সুযোগে সাবেক সাবরেজিস্টার ও সাবেক চেয়ারম্যান সাইলু মীর তাদের প্রত্তিক ও ক্রয় করা ফসলি জমিতে ঘেয়ার করেছেন।

উক্ত জমির বিবরণ ৩১ নং সিড্যা মৌজার বি,আর, এস ১০৫৭ নং খতিয়ানে বি,আর,এস ৪১১৯,৪০৭৪,৪০৫৫ নং দাগের ৭৯ শতাংশ ও ২৬৯৬ নং খতিয়ানে ৪০০৫,৪১৩১,৪১৩২ নং দাগের সাড়ে ৭১ শতাংশ এবং ২৬৯৬ খতিয়ানে ৪০৫,৪৩১,৪৩২ নং দাগের সাড়ে ৩৯ শতাংশ জমি দখল করে আছেন।

এ ব্যাপারে নিপ্পন শরীফ জানান,আমি দ্বীর্ঘ ২০ বছর যাবত দেশের বাহিরে থাকি, বাড়িতে আমার বৃদ্ধ মা ও বড় ভাই থাকেন কিন্তুু বড় ভাই কানে শোনেন না আর সেই সুযোগে সাবেক সাবরেজিস্টার ও সাবেক চেয়ারম্যান সাইলু মীরা আমাদের প্রত্তিক ও ক্রয় করা ফসলি জমির ভিতরে ঘেয়ার খনন করেন ও জোর পূর্বক আমার বাড়ির গাছ কেটে নিয়ে যান, আমি এই ব্যাপারে তার কাছে সমাধানের জন্য গেলে সে আমাকে আজ না কাল করে ঘুরাতে থাকে এবং ইউপি চেয়ারম্যান অবগত করলে ও সমাধান হয়নি, আমি প্রশাসন ও এলাকাবাসীর কাছে বিনিত অনুরোধ জানাচ্ছি আমি যেন আমার জমি জমা ফিরত পাই।

সাবেক সাবরেজিস্টার ও সাবেক চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম সাইলু জানান, নিপ্পন প্রবাসে থাকা অবস্থায় তার বোনরে দিয়ে চুক্তি করে এবং তার জমির সমস্ত অরিজিনাল কাগজ পত্র জমা দিয়ে এই জমি বাবদ আমার কাছ থেকে ১৫ লক্ষ টাকা নিয়েছেন,

তিনি আরো জানান যদি তার জমির অরিজিনাল কাগজ পত্র দেখাতে পারে আমি কথা দিলাম ওর জমি আমি ফিরিয়ে দেব।

Leave a Reply

Your email address will not be published.