‌‌দৈনিক সময়ের বার্তা নিজস্ব প্র‌তিনি‌ধি:

নীলফামারীর সৈয়দপুরে প্রতিবেশীর পুকুরের পানির তোড়ে আর এক প্রতিবেশীর পশু রাখার গোয়াল ঘর ভেঙ্গে পড়ার উপক্রম হয়েছে। এটি ঘটেছে পৌর শহরের ৩নং ওয়ার্ড রসুলপুরে। ওই এলাকার বাসিন্দা ভুক্ত‌ভোগী রকি জানান,আমি দীর্ঘ প্রায় ২৫ বছর থেকে রেলওয়ের সরকারি পুকুর পাড়ে বসবাস করে আসছি। হঠাৎ করে ওই পুকুর ময়নুল কাজি নামে এক লোক দখলে নেয়। তিনি নাকি পুকুর লিজ নিয়ে তা দখলে নেন। এরপর তিনি ওই পুকুর ঘিরে নিয়ে সেখানে থিম পার্ক নামে একটি বিনোদন কেন্দ্র খোলেন। ওই পার্কের লোকের ইশারায় সাগর নামে একজন আমার ঘরের কাছে লাগানো কিছু গাছপালা কেটে ফেলে। রকি অারো জানান, আমি বাসায় না থাকা অবস্থায় সৈয়দপুর থিম পার্কের মালিক সাগর, কর্মচারী আজাদ ও বাবু পুকুর পাড়ের বড়ছোট গাছগুলো কেটে দেয়। ফলে পাড়ের মাটি ধসে গিয়ে পানি টিনের ভেতর দিয়ে ঢুকে পড়ে এবং বাসার টিনর বেড়া হেলে গেছে। বাসাগুলো এখন ঝুকির মধ্যে আছে। পুরো বাসা নিয়ে আমরা বড়ধরনের বিপদের আশংকায় আছি। এ‌দি‌কে বর্তমানে চলছে বর্ষাকাল। পুকুরের পাড় বর্ষার পানিতে নরম হওয়ায় তা যে কোন সময় ভেঙ্গে পরার আশঙ্কা রয়েছে। আর তাতে আমার ঘরও ভেঙ্গে যেতে পারে। পুকুরের পানিতে যদি আমার ঘর ভেঙ্গে পড়ে তাহলে আমার বড় ধরনের ক্ষতি হবে। তাই এ বিষয়টি নজরে নিয়ে পুকুর পাড়ের ভাঙ্গন রোধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য ওয়ার্ড কাউন্সিলর জিয়াউল হকের দৃষ্ঠি কামনা করেন তিনি। এদিকে পুকুরের বিষয়‌টি নি‌য়ে পার্ক পরিচালনাকারী মালিকের সাথে কথা বলতে গেলে তারা দায় নিতে অস্বীকার করে এবং হুমকি দিয়ে বাসা ছেড়ে অন্য কোথাও যেতে বলে। এভাবে তারা রাজনৈতিক প্রভাব দেখিয়ে উল্টো থানায় আমার নামে মিথ্যা অভিযোগ করে। বিষয়‌টি নি‌য়ে জানতে চাই‌লে পার্ক প‌রিচালক সাগ‌রকে বারবার ফোন দি‌লেও পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.