শফিকুল ইসলাম সোহেল, স্টাফ রিপোর্টারঃ

পুলিশ সুপার, শরীয়তপুর জনাব এস. এম. আশরাফুজ্জামান বাংলাদেশ পুলিশের অর্থায়নে শরীয়তপুর পালং থানাধীন কোটাপাড়া মুন্সির হাট নদীর পাড়ে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত বেদে পল্লীর ৪৬ টি বেদে পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন। এ সময় পুলিশ সুপার বলেন “মুজিববর্ষের অঙ্গীকার, পুলিশ হবে জনতার” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বাংলাদেশ পুলিশ সব সময় জনগনের কল্যানে কাজ করে আসছে। জনগনের সকল ধরনের বিপর্যয়ে নিরলস ভাবে কাজ করছে পুলিশ। করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলাসহ দেশের ক্রান্তিকালে সব সময় কাজ করছে পুলিশ। বাংলাদেশ পুলিশের মাননীয় আইজিপি মহোদয়ের নির্দেশক্রমে বাংলাদেশ পুলিশের অর্থায়নে বাংলাদেশ পুলিশ বন্যা দুর্গতদের মাঝেও সাহায্য সহায়তা প্রদান করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় আমরা আজ পালং থানাধীন কোটাপাড়া মুন্সির হাট নদীর পাড়ে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত বেদে পল্লীর ৪৬ টি বেদে পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করি। সমাজে যত নিম্ন শ্রেণীর আয়ের মানুষ আছে তাঁদের মধ্যে অন্যতম হলো এই বেদে শ্রেণীর লোকেরা, বন্যার কারনে তারা কর্মহীন হয়ে পড়েছেন। তাই আমরা জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে ত্রাণ সামগ্রী প্রদান করলাম এবং অসহায় দারিদ্র মানুষের প্রতি জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে এ ধরনের সহায়তা কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। আমরা জনগনের আস্থার পুলিশ হতে চাই, জনগনের আস্থা অর্জন করতে চাই। আমরা বাংলাদেশ পুলিশ সব সময় জনগনের পাশে আছি ও থাকবো। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জনাব আসলাম উদ্দিন, অফিসার ইনচার্জ, পালং মডেল থানা, শরীয়তপুরসহ জেলা পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ ও অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.