আরিফ রববানী,(ময়মনসিংহ)

সোনার বাংলা মুজিব বর্ষে-সমাজকল্যাণ এগিয়ে চলে,প্রতিবন্ধী ভাতা প্রদান-শেখ হাসিনারই অবদান, বিধবা ভাতার প্রচলন, শেখ হাসিনারই উদ্ভাবন, শেখ হাসিনার মমতা-বয়স্কদের নিয়মিত ভাতা, শেখ হাসিনার বাংলাদেশ-ক্ষুধা হবে নিরুদ্দেশ, এসব শ্লোগান বাস্তবায়নে মুজিব জন্মশত বার্ষীকিতে ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশের অন্তর্গত ইউনিয়ন গড়ার লক্ষে গৌরীপুর উপজেলার ভাংনামারী ইউনিয়নের প্রকৃত গরীব,দুঃস্থ হতদরিদ্রদের বাছাইয়ের মাধ্যমে গরীবের জন্য ২০১৯-২০অর্থ বছরের জন্য সরকারের বরাদ্ধ কৃত বয়স্ক,বিধবাসহ বিভিন্ন ভাতার কার্ড স্বচ্ছ ও দুর্নীতিমুক্ত পরিবেশে উম্মুক্ত পরিবেশে উপযুক্ত সুবিধাভোগীদের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে।

সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় গৌরীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দিক-নির্দেশনায় ভাংনামারী ইউনিয়নের উন্নয়নের রুপকার ইউপি চেয়ারম্যান ও আওয়ামিলীগ নেতা অধ্যাপক মফিজুন নূর খোকার সার্বিক তত্বাবধানে উন্মুক্ত পদ্ধতিতে বয়স্ক ভাতা, স্বামী নিগৃহীতা, বিধবা ভাতা ও অস্বচ্ছল প্রতিবন্ধী ভাতার উপযুক্ত সুবিধাভোগীদের যাচাই বাছাই করে এসব ভাতার কার্ড বিতরণ করা হয়েছে। ৮ই আগষ্ট শনিবার ভাংনামারী ইউনিয়ন পরিষদের প্রাঙ্গনে সমাজসেবা অধিদপ্তরের আয়োজনে ইউপি চেয়ারম্যানের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ও ইউপি সচিবের সহযোগিতায় সকাল ১০টায় আনুষ্ঠানিকভাবে এই ভাতার কার্ড বিতরণ কর্মসুচীর উদ্বোধন করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও যুবলীগ নেতা মোফাজ্জল হোসেন খাঁন । ভাংনামারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামিলীগ নেতা অধ্যাপক মফিজুন নূর খোকা উদ্ভোধনী বক্তব্যে-গণতন্ত্রের মানষকন্যা,উন্নয়নের রুপকার,বিশ্বসেরা প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আগামী দিনে মাদক,দুর্ণীতি,অন্যায়-অত্যাচার,ক্ষুধা-দারিদ্র ও ভিক্ষুকমুক্ত আধুনিক, ইউনিয়ন বাস্তবায়নে ইউনিয়নবাসীর দোয়া ও সার্বিক সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন।

এ সময় উপজেলা সমাজসেবার কর্মকর্তা,ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ফজলে মাসুদ ও ইউপি সদস্যবৃন্দ এবং স্থানীয় রাজনৈতিক,সামাজিক, গন্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। উম্মুক্ত পরিবেশে ঘুষ,লেনদেন বিহীন পরিবেশে খুব সহজে ভাতার কার্ড হাতে পেয়ে বর্তমান সরকারের সফল প্রধানমন্ত্রী মহিয়সী নারী দেশরত্ন শেখ হাসিনা ও ইউপি চেয়ারম্যানের প্রশংসায় মেতে উঠেন সুবিধাভোগী গরীব হত দরিদ্ররা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.