দৈনিক সময়ের বার্তা, মোস্তাফিজুর রহমান, জেলা প্রতিনিধি,ঝিনাইদহঃ-

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় এক ভন্ড কবিরাজের কান্ডে এলাকাজুড়ে চলছে তোলপাড়। ছেলেকে সুস্থ্য করতে তিন বৎসর প্রবাসির স্ত্রীকে ধর্ষন করে ভিডিও ধারণ করে তার নিকট থেকে হাতিয়ে নেয়া ২লাখ টাকা স্বার্ণালঙ্কার ও ৩টি ছাগল ফেরৎ চাইলে কবিরাজ ভিডিও ফাঁস করার হুমকি দিলে প্রবাসির স্ত্রী জেলার হরিনাকুন্ডু থানায় অভিযোগ করেন। এঘটনা জানাজানি হওয়ার পরে এলাকা জুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। জানা গেছে, ঝিনাইদহ জেলার হরিনাকুন্ড থানার কালা পাহাড়িয়া গ্রামের নূরুল ইসলাম (প্রবাসী) এর স্ত্রী চায়না খাতুন (৪০) তার ছোট ছেলে আকাশ (১৮) মানসিক ভারসাম্যহীন হওয়ায় বিভিন্ন সময়ে কবিরাজের দ্বারস্থ হন।

এমতাবস্থায় চায়না খাতুনকে তাহার ছেলের জ্বীনের আছর আছে বলে শৈলকুপার দেবীনগর মাইলমারী গ্রামের আমজাদ মোল্ল্যার ছেলে ভন্ড কবিরাজ নবী মোল্ল্যা (৪০) চায়না খাতুনের ছেলেকে সুস্থ করে দেওয়ার কথা বলে আনুমানিক তিন বৎসর যাবৎ বিভিন্ন সময়ে প্রবাসীর স্ত্রী চায়না খাতুনকে একাধিক বার ধর্ষন সহ নগদ দুই লক্ষ টাকা (২,০০,০০০/-),৩টি ছাগল, সহ স্বর্ণালংকার যার আনুমানিক মূল্য ৪০০০০ চল্লিশ হাজার টাকা। চায়না খাতুনের কাছ থেকে প্রতারক কবিরাজ নবী মোল্ল্যাকে উক্ত সম্পদ লুটে নেওয়ার পরে তার ছেলে সুস্থ না হওয়াই সে ভন্ড কবিরাজ নবী মোল্ল্যার কাছে টাকা ফেরৎ চাইলে নবী চায়না বেগমের কাছে উল্টা এক লক্ষ টাকা দাবি করছে যদি টাকা না দেয় তাহলে চায়না বেগমের সাথে অনৈতিক ও কুরুচিপূর্ণ কাজের ভিডিও ইন্টারনেটে প্রকাশ করে দিবে মর্মে সাফ জানিয়ে দিলে অবশেষে চায়না বেগম হরিনাকুন্ডু থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এদিকে চায়না বেগমের ধর্ষন করা ভিডিও ও ছবি ডিলেট করার শর্তে পুরো ঘটনার সমাধান হয়েছে মর্মে সাংবাদিকদের জানান চায়না বেগম।

Leave a Reply

Your email address will not be published.