রাশেদ জামান, নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি :-


জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রবিবার নওগাঁয় নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে। এসব কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, শোক র‌্যালী, মানববন্ধন, আলোচনা সভা ও দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়।

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে নওগাঁ শহরের মুক্তির মোড়ে অস্থায়ীভাবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি স্থাপন করা হয়। সেখানে সকাল ৯টায় জেলা প্রশাসক মোঃ হারুন-অর-রশীদের নেতৃত্বে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। পরে এখানে পুলিশ প্রশাসন, জেলা পরিষদ, নওগাঁ পৌরসভা, সিভিল সার্জন কার্যালয়, নওগাঁ জেলা প্রেস ক্লাবসহ বিভিন্ন সরকারি দপ্তর, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ফুল দিয়ে জাতির পিতাকে শ্রদ্ধা জানান।

সকাল সাড়ে ৯টায় শহরের সরিষাহাটির মোড়ে আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগ। পরে এতে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ, জেলা যুবলীগ, জেলা যুব মহিলা লীগ,শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ ও জেলা ছাত্রলীগসহ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন অঙ্গ-সংগঠন বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে। পরে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক এম পি আব্দুল মালেকের সভাপতিত্বে দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

জাতীয় শোক দিবসে বিনম্র শ্রদ্ধায় জাতি স্মরণ করছে স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৫ আগস্টে নিহত সকল শহীদদের।

নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের আলোচনা সভায় সহ-সভাপতি নির্মল কৃষ্ণ সাহা, জেলা যুবলীগের সভাপতি খোদাদদ খান পিটু, সাধারণ সম্পাদক বিমান কুমার রায়, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক সুমন , ছাত্রলীগের সভাপতি সাব্বির রহমান, সাধারণ সম্পাদক আমানুজ্জামান শিউল প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বাংলাদেশ এক সূত্রে গাঁথা। তিনি ছিলেন বাঙালির প্রাণের নেতা। তিনি নেতৃত্ব দিয়েছেন বলেই বাংলাদেশের সৃষ্টি হয়েছে। তাঁর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়াই হবে তাঁর ত্যাগের অন্যতম প্রধান মূল্যায়ন। এছাড়াও ইসলামি ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে নওগাঁ কেডি সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে কুরআন তেলোয়াত, আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সকাল সাড়ে ১০টায় বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ নওগাঁ জেলা ইউনিট ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান নওগাঁ জেলা কমিটির উদ্যোগে শোক র‌্যালী বের হয়। শহরের পুরাতন কালেক্টরেট চত্বর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কার্যালয়ের সামনে থেকে র‌্যালিটি বের হয়ে শহরের মুক্তির মোড়, বাটার মোড় হয়ে পুনরায় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কার্যালয়ে এসে শেষ হয়। পরে সেখানে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক জেলা কমান্ডার হারুন-অল-রশীদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে মুক্তিযোদ্ধা সংসদের উদ্যোগে উপস্থিত মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়।


নওগাঁ চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি ইকবাল শাহরিয়ার রাসেল, বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি নওগাঁ জেলা ইউনিটের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলে রাব্বি বকু ,
বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন নওগাঁ জেলার সভাপতি সরদার সালাউদ্দিন মিন্টু , নির্বাহী সভাপতি মৌসুমি সুলতানা , সাধারণ সম্পাদক চন্দন দেব , একুশে পরিষদের সভাপতি ডি এম আব্দুল বারী , সাধারণ সম্পাদক এম এম রাসেল , নওগাঁ জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের নেতা এস এম মুরাদ ও
শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ নওগাঁ জেলা শাখার পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ নওগাঁর যুগ্ম আহবায়ক রাশেদ জামান ও আব্দুল হাই সিদ্দিকী সিটু ।

বেলা ১১ টায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতৃব্ন্দৃ ব্যানারে শহরের মুক্তির মোড়ে বিদেশে পালিয়ে থাকা বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে ফাঁসি কার্যকরের দাবিতে মানববন্ধনকর্মসূচি পালিত হয়। মানববন্ধনে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাভেদ জাহাঙ্গীর সোহেল, বিভাস মজুমদার গোপাল, তাজুল ইসলাম তোতা , জুয়েল, রাজন , প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অন্যদিকে বিজিবি ১৬ বর্ডারগার্ড ব্যাটালিয়নের উদ্যোগে শাহাদত বার্ষির্কী উপলক্ষ্যে সীমান্ত পাবলিক স্কুল মাঠে ২০০ টি অসহায় দুঃস্থ পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা বিতরন করা হয়। এসব খাদ্য সহায়তা বিতরন করেন, ব্যাটালিয়ানের অধিনায়ক, উপ-অধিনায়কসহ অন্যান্য কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.