শরিফুল ইসলাম,মানিকগঞ্জ :

মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলার ধামশ্বর ইউনিয়নের নিরালি এলাকায় হামিদুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন পুকুরে থাকা হঠাৎ সবগুলো মাছ মরে ভেসে উঠেছে।

শুক্রবার (৫ নভেম্বর) ভোরে ওই পুকুরে পালিত মাছকে খাদ্য দিতে গেলে হঠাৎ পুকুরের মালিক দেখতে পান তার পুকুরের সব মাছ মরে ভেসে উঠেছে। মৃত মাছ ভেসে ওঠে সাদা হয়ে গেছে পুরো পুকুর । পুকুরের মালিক জাহাঙ্গীর বলেন ‘সর্বশেষ গত বছর আমি এই পুকুরে পাঙ্গাস, রুই, মৃগেল, বাটা, তেলাপিয়া, সিলভার কার্প, পুঁটিসহ দেশি-বিদেশি বিভিন্ন প্রজাতির মাছের বড় পোনা ছেড়েছি। এ বছর এ মাছ বিক্রি করার পরিকল্পনা ছিল আমার।’ মাছ মেরে ফেলার বিষয়ে অজ্ঞাতপরিচয় আসামি করে দৌলতপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান।

জাহাঙ্গীর আলম বলেন, অনেক ধারদেনা করে মাছ চাষ শুরু করেছি। পুকুরে থাকা মাছের সাইজ অনেক বড় বড় হয়েছিল। মাছ মেরে ফেলায় প্রায় ১৫ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে । এ ক্ষতি পুষিয়ে ওঠা আমার জন্য খুব কষ্টসাধ্য। পুকুরের মাছ ও পানি পরীক্ষার জন্য চেষ্টা করতেছি। মাছ মরে যাওয়ার বিষয়ে সুষ্ঠু তদন্ত চাই ।

এ বিষয়ে দৌলতপুর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ ফরিদ আহমেদ বলেন, পুকুরে মাছ মরে যাওয়ার বিষয়টি পুকুরের মালিক আমাকে জানিয়েছে । ধারনা করা হচ্ছে বিষক্রিয়া দ্বারা মাছ মারা যেতে পারেন । তবে পানি বা মাছে কোন বিষক্রিয়া আছে কিনা তা পরীক্ষা করার যন্ত্র আমাদের নেই। আর তাছাড়া বিষক্রিয়া ছাড়া একসাথে পুকুরের সব মাছ মারা যাওয়ার কথা নয় । কোন আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করতে চাইলে থানায় যোগাযোগ করার জন্য পরামর্শ দেয়া হয়েছে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.